প্রেমিকার যে অভ্যাসগুলি পছন্দ নয় পুরুষদের?

0
55

পিপল নিউজ২৪ ডেস্ক:
পিরিতি নাকি কাঁঠালের আঠা। একবার লাগলে আর ছাড়ে না। অবশ্য ভালোবাসার প্রথম অনুভূতিতে মনের মানুষের অনেক দোষ-ত্রুটিই অদেখা থেকে যায়। কিন্তু প্রেম একটু জুড়ে বসতেই ফের বদভ্যাসের কাঁটাগুলি গায়ে বিঁধতে শুরু করে। কেবল পুরুষই নন, বদভ্যাসের এই তালিকায় মেয়েরাও কম যান না। প্রেমিকার এমন বেশ কিছু অভ্যাস রয়েছে, যা পুরুষদের একেবারেই না-পসন্দ। বিশেষ করে :

মেয়েদের পেটে নাকি কোনো কথাই থাকে না। বেশির ভাগ মহিলারাই নিজের সম্পর্কের গোপন তথ্য অন্যদের সঙ্গে শেয়ার করে ফেলেন। আর অন্যদের মতামত অনুযায়ী নিজের সম্পর্কের তুল্যমূল্য বিচার করতে শুরু করেন।

প্রেমিক যখন মনযোগ দিয়ে কোনো কাজ করছেন, তখনই মেয়েদের যাবতীয় কথা তাঁকে জানানোর ইচ্ছে হয়। কাজ যত গুরুত্বপূর্ণই হোক না কেন শ্রীমতির কথায় কান দিলেই বিপদ।

প্রেমিকের প্রেম যখন নারী শরীরের উষ্ণতা চায়, ঠিক সেই মুহূর্তে তাঁর আবেদনে বিন্দুমাত্র সাড়া না দিয়ে অন্য কাজে ব্যস্ত হয়ে যাওয়া একদম পছন্দ নয় পুরুষদের।

সম্পর্কের মধ্যে থাকলেও প্রত্যেকের নিজস্ব স্পেস থাকা উচিত। আর এই কথা পুরুষদের ক্ষেত্রে একটু বেশিই প্রযোজ্য। প্রত্যেক মুহূর্তের ওঠাবসার খবর পুরুষরা প্রেমিকাকে দিতে একদম ভালোবাসেন না।

নিজের মনের কথা বলা ভালো। কিন্তু হামেশা কথা বলতে থাকলে তা বিরক্তির পর্যায় পৌঁছে যায়। মাঝে মধ্যে না বলেও অনেক কথা বলে ফেলা যায়। আর এ কথাটি অনেক মহিলাই বোঝেন না।

আমায় কি মোটা লাগছে? ওকে কি আমার থেকে বেশি ভালো দেখতে? প্রেমিকার এমন তুলনামূলক প্রশ্ন পুরুষদের একদমই পছন্দ নয়।

প্রত্যেক পুরুষ চান প্রেমিকা তাঁর জীবনের প্যাশনটিকে বুঝুক। আর তা না বুঝলে সম্পর্ক টেকানো বেশ মুশকিল। জোর করে স্বাভাবিক জীবনযাত্রা পালটানো তাঁরা একদম পছন্দ করেন না।

অবশ্য সম্পর্ক কেবলমাত্র পুরুষ কিংবা নারীর গুণাগুণের ওপর নির্ভর করে না। দুজনের মিলিত প্রয়াসেই তা হয়ে ওঠে পোক্ত।

NO COMMENTS