বিজিসি ট্রাস্ট ইউনিভার্সিটির বিজনেজ স্টুডেন্ট সোসাইটির ১৩তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী

0
91

পিপল নিউজ২৪ডটকম:বিজিসি ট্রাস্ট ইউনিভার্সিটির বিজনেজ স্টুডেন্ট সোসাইটির ১৩তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী সম্প্রতি বিশ¡বিদ্যালয়ের ক্যাম্পাসে অনুষ্ঠিত হয়। নিয়মিত শিক্ষা কার্যক্রম ছাড়াও অন্যান্য বিষয়ে শিক্ষা কার্যক্রম সম্প্রসারণের এবং উৎকর্ষ সাধনের নিমিত্তে ছাত্রদের দ্বারা পরিচালিত ৬টি ক্লাবের সহায়তায় ব্যবসা প্রশাসন অনুষদ এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করেন ।
উক্ত অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন রূপালী ব্যাংকের পরিচালক এবং চট্টগ্রাম বিশ¡বিদ্যালয়ের হিসাব বিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক ড.মোহাম্মদ সেলিম উদ্দিন,এফসিএমএ,এফসিএ। প্রধান অতিথি তার বক্তব্যে ছাত্রদেরকে জাতীয় ও বৈশি¡ক প্রেক্ষাপটে তাদের চমৎকার কর্মজীবন গড়ে তোলার জন্য প্রেরণার উৎস হিসেবে শিক্ষা ও শিক্ষার শক্তি,জ্ঞান ও জীবনের প্রতিটি ক্ষেত্রে জ্ঞানের প্রবাহ, ক্যারিয়ার ও ক্যারিয়ারের উন্নয়ন এবং ব্যবসায় শিক্ষার বিভিন্ন দিক সম্পর্কে আলোকপাত করেন। ড. সেলিম কেন শ্রেষ্টত্বের জন্য শিক্ষা ব্যাখ্যা করেন এবং শিক্ষা, অশিক্ষা, কুশিক্ষা ও সুশিক্ষা ইত্যাদির অন্তনির্হিত অর্থ ব্যাখ্যা করেন। প্রাতিষ্ঠানিকভাবে শিক্ষিত হয়েও যারা হীনমন্যতা, কুসংস্কার, অন্যায়, অবিচার,অত্যাচার, ঘুষ, দূর্নীতি ইত্যাদিতে জড়িত তারাই অশিক্ষিত এবং কুশিক্ষিত লোক এবং এরা পরিবার,সমাজ, দেশ,জাতি তথা সারা বিশে¡র জন্য ক্ষতিকর এবং ভয়ংকর । ড. সেলিম উদাহরনের মাধ্যমে ব্যাখ্যা করে বলেন যে, শিক্ষা মানুষের মধ্যে জ্ঞান, আলো, দক্ষতা, সক্ষমতা,ক্ষমতা, সৃজনশীলতা, দুরদৃষ্টি, উৎকর্ষতা,কৌশলী, যোগ্যতা এবং নানাবিধ কর্মকৌশলতা আনায়ন করে যেটি দ্বারা সারা দুনিয়ার টেকশই উন্নয়নে অবদান রাখা সম্ভব। তিনি ক্যারিয়ার উন্নয়নে প্রভাব বিস্তারকারী তত্ত্ব উপাদানসমূহ ক্যারিয়ার ব্যক্তিত্ব বিভিন্ন ধরনের ক্যারিয়ার, ক্যারিয়ার সিদ্ধান্তহীনতা এবং ব্যবসা শিক্ষার সাথে এগুলো সম্পর্ক নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করেন। ড. সেলিম ব্যবসা শিক্ষা ভিত্তিক পেশা এবং প্রতিষ্ঠানে তার অবস্থানকে জাতীয় ছাড়াও আর্ন্তজাতিক অঙ্গনে এক গুরুত্বপূর্ণ এবং চমৎকার পেশা হিসেবে অভিহিত করেন। এই প্রেক্ষিতে তিনি ব্যবসা শিক্ষার গুরুত্ব,বিশেষ খ্যাতি এবং অবস্থানের কারণ হিসেবে বিভিন্ন মাত্রার যেমন হিসাব বিজ্ঞান, অর্থ- ব্যবস্থাপনা, মার্কেটিং, ট্যালেন্ট ব্যবস্থাপনা, মানব সম্পদ ব্যবস্থাপনা, সাপ্লাই চেইন ব্যবস্থাপনা, কৌশল ইত্যাদি বিষয়ে ব্যাখ্যা করেন। এ ছাড়া ব্যবসা প্রশাসনের লোকদের নেতৃত্ব, কৌশলগত উদ্ভাবন, অপারেশনাল বিন্যাস এবং ক্রমাগত প্রশিক্ষণ ও উন্নয়ন সম্পর্কে বিশেষভাবে উল্লেখ করেন । ড. সেলিম ব্যবসায় গ্রাজ্যুটদের কর্তব্য, কর্ম, দায়িত্ব, নৈতিকমান এবং আইনগত ও পেশাদারিত্ব প্রতিশ্রুতির বিষয়ে উল্লেখ করেন। সর্বশেষ তিনি বিএসএস সদস্যগণ বাংলাদেশের টেকসই উন্নয়নের ক্যাটালিষ্ট হিসাবে ভূমিকা পালন করবে বলে বিশ¡াস করেন । প্রফেসর রনজিৎদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত অনুষ্ঠানে সম্মানিত অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিশ¡বিদ্যালয়ের কোষাধ্যক্ষ ও উপাচাযর্ (চলতি দায়িত্ব) প্রফেসর অজিৎ দে । এছাড়া বিশেষ অতিথি প্রফেসর ড. সরওয়ার, প্রফেসর সুদীপ্ত দে, প্রফেসর নুরুল হুদা শিকদার, রেজিস্টার জনাব আক্তারুজ্জামান বক্তব্য প্রদান করেন । অনুষ্ঠানে বিভিন অনুষদ ও বিভাগের শিক্ষক, শিক্ষীকা, কর্মকর্তা ও ছাত্র-ছাত্রী উপস্থিত ছিলেন ।

NO COMMENTS